সাপাহারে পারিবারিক দ্বন্দের কারনে মাদরাসার শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্তের অভিযোগ

Header

রিপোর্টিং,সাপাহার(নওগাঁ)প্রতিনিধিঃ নওগাঁর সাপাহারে একটি মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতির সাথে দীর্ঘদিনের পারিবারিক দ্বন্দের জেরে ধরে এক শি¶ককে সাময়িক বরখাস্তের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার জয়দেবপুর ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসায় এ ঘটনাটি ঘটেছে।

গত ২৯ সেপ্টেম্বর জয়,দা,মা ৯৯/২০২২ নম্বর স্মারকে ওই মাদরাসার সহকারী মৌলভী শি¶ক কামরুজ্জামান কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এর আগে গত ০১ আগস্ট দ্বিতীয় ঘন্টায় অষ্টম শ্রেণী ক্লাসে বিলম্ব ও চতুর্থ ঘন্টায় সপ্তম শ্রেণী ক্লাসে অনুপস্থিত এবং সুপারিন্টেনডেন্টের সাথে বিতর্কে জড়ানো ও তাকে দাঁত ভাংগার অভিযোগ এনে কামরুজ্জামান নামের ওই সহকারি মৌলভী শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। উক্ত কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দেন সহকারী শি¶ক কামরুজ্জামান। ওই নোটিশে এহেন কোন ঘটনা ঘটেনি উল্লেখ করে কামরুজ্জামান বলেন আপনি (সুপার) দীর্ঘদিন যাবত আপনার ভাই, ভাতিজা সহ কতক লোকের সহিত যোগসাজসী করিয়া প্রতিষ্ঠান চলাকাকালিন সময় বা যখন তখন মারপিট জীবন নাশের হুমকি ধামকি দেন।
প্রতিষ্ঠানে চাকুরী হতে বাদ দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছেন। যা সম্প‚র্ণরুপে উদ্দেশ্য প্রনোদিত ও আক্রোশ মুলক। তিনি নোটিশের জবাবে আরও বলেন, আমি জয়দেবপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসা প্রতিষ্ঠাকালীন সময় হতে সহকারী মৌলভী পদে সুনামের সহিত চাকুরী করে আসতেছি। চাকুরী সময়ে নিয়মিত ও সঠিক সময়ে প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত থেকে পাঠদান করি। আমি ইতিপ‚র্বে কিংবা ০১ আগস্ট বা পরে এবং প্রতিষ্ঠানে কারো সাথে কোন প্রকার অসৎ আচরণ করি নাই এবং ভবিষতে ও করবো না।

সন্তোষজনক কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দাখিলের পরও তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করে জয়দেবপুর ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা সহকারী মৌলভী শি¶ক কামরুজ্জামান বলেন, আমি প্রতিষ্ঠা লগ্ন হতে সহকারী মৌলভী শি¶ক হিসেবে শি¶কতা করে আসতেছি। সম্প্রতি মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি ইসমাইল হোসেনের সাথে দীর্ঘদিনের পারিবারিক দ্বন্দের জেরে সুপারিনটেনডেন্ট আফতাবুদ্দীনের যোগসাজসে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে আমাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সঠিক তদন্ত সাপে¶ে ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপ¶ের সুদৃষ্টি কামনা করেন শি¶ক কামরুজ্জামান।

ads

জয়দেবপুর ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসা সুপারিনটেনডেন্ট আফতাবুদ্দীন বলেন,প্রতিষ্ঠানে লেখা পড়ায় অবহেলা,প্রতিষ্ঠান প্রধানের সাথে অসদাচরণ ও গালিগালাজ করেছে সে কারনে শি¶ক কামরুজ্জামান কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। জয়দেবপুর ইসলামীয়া দাখিল মাদরাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি ইসমাইল হোসেন বলেন, এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানের স¦ার্থে যেখানে যাওয়ার দরকার সেখানে যাবো। মিডিয়ার সামনে এ বিষয়ে কথা বলবোনা।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শামসুল কবীর বলেন, প্রতিষ্ঠান প্রধান ও শিক্ষক কামরুজ্জামান দুজনেই আমার কাছে এসেছিলেন। পারিবারিক কন্দোল বা দ্বন্দ যাই থাকুক চাকুরী করতে হলে একটা নিয়ম কানুন মেনে চলতে হবে। প্রতিষ্ঠানের নিয়ম নীতির ব্যত্তয় ঘটায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুল্যাহ আল মামুন বলেন, আমি কিছুই জানিনা। হয়তো চিঠিপত্র দিয়ে থাকতে পারে। আমি এই মাত্র জানলাম।

ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *