বিএনপি নেতা আনিস সিকদার-শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে অফিস সহকারী মোঃ আঃ হালিমকে পিটালেন

Header

রির্পোটিং চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি:সিরাজগঞ্জের চৌহালীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে অফিস সহকারীকে পিটানোর অভিযোগ উঠেছে বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে।গত বুধবার (২০ জুলাই) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে, এবিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী।অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পয়লা বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের অফিস সহকারী মোঃ আঃ হালিম ( বাবুল সরকার) কে চৌহালী সিকদার পাড়া কারিগরি কলেজের রেজিলেশন খাতায় স্বাক্ষর না করায় কলেজের প্রতিষ্ঠাতা বিএনপি নেতা আনিস সিকদার এবং তার ভাই কলেজের পিয়ন মোঃ মুজিবুর রহমান বুলু সিকদার সহ ৩/৪ মিলে মারপিট করেছেন ।
এবিষয়ে ভুক্তভোগী অফিস সহকারী মোঃ আঃ হালিম(বাবুল সরকার) বলেন, আমি কারিগরি কলেজের ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য, আজ আমার কাছে কলেজের প্রতিষ্ঠাতা বিএনপি নেতা আনিস সিকদার এবং তার ভাই মুজিবুর রহমান বুলু সিকদার কলেজের অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগের রেজুলেশন খাতা এবং নোটিশ খাতায় স্বাক্ষর করতে বলে বিষয়টি আমি অবগত না থাকায় স্বাক্ষর করি না এবং কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে পরামর্শ করে স্বাক্ষর করবো বলে জানাই । একপর্যায়ে সে উত্তেজিত হয়ে আমার গলা চেপে ধরে কিল-ঘুসি শুরু করে পরে তার ভাই সহ আরও ৩/৪ জনকে সাথে নিয়ে আমাকে কিল ঘুষি মেরে জখম ও আহত করে। আহত অবস্থায় আমার স্কুলের প্রধান শিক্ষক সহ সহকারী শিক্ষকরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন।
এ বিষয়ে পয়লা বহুমূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মির্জা মোঃ আনিছুর রহমান বলেন, রেজুলেশন খাতা এবং নোটিশ খাতায় স্বাক্ষর না দেওয়ায় বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে অফিস সহকারী মোঃ আঃ হালিম কে বিএনপি নেতা আনিছ সিকদার এবং তার ভাই মুজিবুর রহমান বুলু সিকদার মারপিট করে তাকে আহত করলে আমরা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসার ব্যবস্হা করি।
চৌহালী থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) হারুন অর রশিদ বলেন, এবিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে ব্যবস্হা নেওয়া হবে।

ads
ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *