জনসাস্বার্থের নাম ভাঙিয়ে ইট ভাটা থেকে রাবিশ নিয়ে নিজের ঘরের কাজে লাগালো ইউপি সদস্য

Header

বর্ষা মৌসুমে জনসাধারণের চলাচলের রাস্তায় পানি জমে থাকায় সেই খানা খন্দ ভরাটের কথা বলে স্থানীয় একটি ইট ভাটা( JSM) থেকে এক ট্রাক্টর রাবিশ নিয়ে নিজের ঘরের কাজের জন্য ব্যবহারের অভিযোগ উঠেছে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ২১ নং ঢোলারহাট ইউনিয়নের ৭,৮ এবং ৯ নং ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য মানসি রানীর বিরুদ্ধে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঐ এলাকার প্রায় রাস্তা গুলো বর্ষা মৌসুমে খানা খন্দকের সৃষ্টি হয়েছে, এতে করে জনসাধারণের চলাচলের ভোগান্তি পোহাচ্ছে। কিন্তু এরি সুযোগ কাজে লাগিয়ে স্থানীয় মহিলা সদস্য মানসি রানী একটি ইট ভাটার কাছে এক ট্রাক্টর রাবিশ নিয়ে রাস্তায় না দিয়ে নিজের ঘরের কাজে ব্যবহার করছে।

নাম বলতে অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি বলেন, ইট ভাটা থেকে রাবিশ নিয়ে আসলো জনসাধারণের নাম ভাঙ্গিয়ে রাস্তায় খানা খন্দক ভরাট করবে বলে আর সেই রাবিশ নিজের ঘরের কাজে লাগালো, এই যদি হয় ইউপি সদস্য তাহলে বাকিরা কি হবে।

ads

এ বিষয় মহিলা সদস্য মানসি রানীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি ভাটা থেকে রাবিশ নিয়ে এসেছি আমার কথা বলে, এই রাবিশ আমি করব না করব সেইটা আমার ব্যাপার।

জেএসএম ইট ভাটার ম্যানেজার আব্দুল আজিজের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,ওয়ার্ড মেম্বার মানসি রানী আমার কাছে দুই ট্রাক্টর রাবিশ চায় জনগণের স্বার্থে তিনি বলেন বর্ষার কারণে রাস্তা গুলো খানা খন্দকে পরিনত হয়েছে তারজন্য আমাকে দুই গাড়ি রাবিশ দেন। তখন আমি এক গাড়ি রাবিশ দিয়েছি। কিন্তু বেশ কিছু দিন পার হলেও দেখা যায় তিনি রাস্তার খানা খন্দকে কোন রাবিশ দেননি তারপর আমি নিজে সেই সব স্থানে রাবিশ ফেলি। এমন যদি হয় ইউপি সদস্য তাহলে কি ভাবে অন্য কোন ইউপি সদস্যকে বিশ্বাস করবো।
ইউপি চেয়ারম্যান অখিল চন্দ্র রায় বলেন, এ বিষয় আমি কিছু জানি না।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মোঃ সামসুজ্জামান বলেন, এ বিষয় আমার জানা নেই তবে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *