গুলিস্তানে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হতেই সড়ক অবরোধ করে হকারদের বিক্ষোভ

Header

রাজধানীর গুলিস্তান এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান শুরু হতেই সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেছেন হকাররা। এসময় তারা অভিযান বিরোধী স্লোগান দিতে থাকেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১টার দিকে গুলিস্তান এলাকায় উচ্ছেদ অভিযানে নামে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)। ডিএসসিসির সম্পত্তি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামানের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। অভিযান শুরুর পর একজন জরিমানা করা হয়। তখনই হকাররা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন। এরপর সিটি কর্পোরেশনের অভিযান টিম সেখান থেকে চলে যায়। বিক্ষোভকারীরা বলছেন, কোথাও পুনর্বাসন না করে উচ্ছেদ করাটা আমরা নেবো না। এই অভিযান বন্ধ করতে হবে।

বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের উপদেষ্টা জলি তালুকদার বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে আমরা বলতে চাই, আপনি হকারদের বিষয়ে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, আশা করি আপনি সেই প্রতিশ্রুতি আপনি রাখবেন। যদি না রাখেন তাহলে আপনাদের কথাও আমরা রাখতে পারবো না। আমাদের যদি গায়ের জোরে জায়গা থেকে তুলে দিতে চান, তাহলে আমরা প্রতিরোধ গড়ে তুলবো।

বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল হাসিম কবির বলেন, আমরা শুনেছি হকারদের জন্য মেয়র সাহেব একটি মার্কেট করছেন। উনি বলেছেন ওখানে নাকি হকারদের জায়গা দেওয়া হবে। আমরা বলতে চাই, আপনারটা হবে নগদ আর আমাদেরটা হবে বাকি। এটা আমরা মেনে নেবো না।

ads

তিনি বলেন, আপনারা মার্কেট করবেন সেখানে ৪ থেকে ৫ বছর সময় লাগবে। এই লম্বা সময়টা আমাদের হকাররা কোথায় যাবে? আজ আমাদের হকারদের ব্যবস্থা করবেন, তারপর আমরা জায়গা ছাড়বো। এখন আপনারা চাইলে পাঁচতলা মার্কেট করেন বা একশ তলা বিল্ডিং করবেন, সেটা আপনাদের বিষয়।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি) সড়ক ও ফুটপাত লাল, হলুদ ও সবুজ শ্রেণিতে চিহ্নিত করছে। লাল চিহ্নিত সড়ক ও ফুটপাতে কখনো হকার বসতে পারবে না। পাশাপাশি হলুদ শ্রেণি চিহ্নিত সড়ক ও ফুটপাতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নির্ধারিত সময়ে এবং নির্দিষ্ট স্থানে হকার বসতে পারবে। আর সবুজ চিহ্নিত সড়ক ও ফুটপাতে পথচারী বা যানচলাচলে বিঘ্ন না ঘটিয়ে হকার বসতে পারবে।

সড়ক ও ফুটপাতের ওপর অবৈধভাবে স্থাপিত দোকানপাট ও হকার উচ্ছেদের মাধ্যমে জনসাধারণের হাঁটার পথ দখলমুক্ত করতে অভিযান শুরু করেছে ডিএসসিসি। প্রাথমিকভাবে লাল চিহ্নিত গুলিস্তান এলাকায় বা রেড জোনে রবিবার অভিযান চালিয়েছে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন।

ads

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *